করোনা ভাইরাস মুসলিমদের জন্য সুসংবাদ | Islam Vs Corona Virus

করোনা ভাইরাস

করোনা ভাইরাস যবে থেকে শুরু হইছে তবে থেকে মানুষ নানা গুজব আর আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। আর একদল মানুষ তো ইসলাম ধর্মকে পূঁজি করে নানা রকম ভুয়া হাদিস ও ভন্ড হুজুরের ফতোয়া দিয়ে যাচ্ছে। তাদের তো ব্যবসার জন্য ধর্ম বিক্রি উত্তম উপায়, আর হুজুগে বাঙ্গালি অন্ধের মত গিলে যাচ্ছে শুধু। যাই হোক করোনা ভাইরাস নিয়ে আমি কিছু সঠিক তথ্য দেয়ার চেষ্টা করব, তাই কোন ভুল হলে আমাকে ধরিয়ে দেবেন, আমি রেফারেন্স সহ ব্যখ্যা দিব।

করোনা ভাইরাসের প্রভাব

প্রতিদিন পৃথিবীতে স্বাভাবিক মৃত্যুর হার কমে গেছে এই করোনা ভাইরাসের কারণে! কি অবাক হলেন? হুম অবাক হবারই কথা, যেটা নিয়ে এত মাথা ব্যাথ্যা আর মৃত্যুর ভয়, সেই ভাইরাস কিনা স্বাভাবিক মৃত্যুর হার কমিয়ে দিছে? জী করোনা ভাইরাসের কারণে রাস্তাঘাটে মানুষের পরিমাণ কমে গেছে কারণ বিশ্ব জুড়ে অফিস আদালত ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বন্ধের জন্য। আর একারণে সড়ক দূর্ঘটনাও কমে গেছে।

মানুষের সচেতনার জন্য হাসপাতালে অন্যান্য রোগে আক্রান্ত রোগীর পরিমাণ কমে গেছে। আরো নানা বিষয়ের কারণে পৃথিবীতে প্রতিদিন গড় মৃত্যুর হার কমে গেছে। কি আশ্চর্য বিষয় তাই না? এখন পর্যন্ত ১লাখ ২০ হাজার আক্রান্তের মধ্যে মাত্র সাড়ে চার হাজারের মত মানুষ মারা গেছে, তাও আবার একমাত্র করোনার কারণে না, অন্যান্য মেজর রোগ থাকায়, করোনা সে রোগীকে দূর্বল করে ফেলে তাই মৃত্যু হচ্ছে।

ইসলামে মহামারি করোনা ভাইরাস

সবাইতো শুধু করোনাকে নিয়ে অভিশাপ বানিয়ে ফেলেছেন। কিন্তু মুসলিমদের জন্য যে এই ভাইরাস স্বর্গের বার্তা নিয়ে এসেছে সেটা কি জানেন? অনেকে হয়তো জানেন না, জানার আগে ইসলামে শহিদ নিয়ে একটু ধারণা দেই।

ইসলামে শহীদ ২ প্রকারঃ

১. হাকিকি বা প্রকৃত শহীদঃ যিনি দুনিয়া-আখেরাত উভয় বিচারে শহীদ। তাকে গোসল করানো হয় না। কাফন দেওয়া হয় না। বরং যে কাপড়ে সে শহীদ হয়েছে, সে কাপড়েই জানাজা পড়ে দাফন করা হয়।

২. হুকমি বা বিধানগত শহীদ। যিনি নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সুসংবাদ মুতাবেক পরকালে শহীদের মর্যাদা লাভ করবেন। কিন্তু পৃথিবীতে তার ওপর প্রথম প্রকার শহীদের বিধান জারী হবে না। অর্থাৎ, সাধারণ মৃত ব্যক্তির মতো তাঁকেও গোসল-কাফন ইত্যাদি দেওয়া হবে।

এখন আসি হুকমি বা বিধানগত শহীদ কারা?
হযরত জাবের বিন আতীক রাদ্বিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত। রাসুল সল্লাল্লাহু তা’য়ালা আলাইহে ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন- আল্লাহর পথে মৃত্যুবরণ করা ছাড়াও সাত প্রকার শহীদ রয়েছে।

  • পানিতে নিমজ্জিত শহীদ।
  • শয্যাশায়ী অবস্থায় মৃত শহীদ।
  • পেটের রোগ মৃত্যুবরণকারী শহীদ।
  • আগ্নিদগ্ধ ব্যক্তি শহীদ।
  • যে ব্যক্তি ধ্বংসাবশেষের নিচে পড়ে মারা যায় সেও শহীদ।
  • সন্তান প্রসব করতে মারা যাওয়া নারীও শহীদ।
  • মহামারীতে মৃত্যুবরণকারী শহীদ।

করোনা ভাইরাস হাদিস

এরকম আরো প্রায় ৪০/৫০ এর উপর শহিদি মর্যাদার কথা বলা আছে। মহামারীতে মৃত্যুবরণকরী বিষয়ে নবী মোহাম্মদ (সাঃ) বলেন- শহীদী মর্যাদা সে ব্যক্তিও লাভ করবে যে মহামারী চালাকালীন আক্রান্ত এলাকায় সওয়াবের নিয়তে ধৈর্য্য ধরে অবস্থান করে এবং সে সময় স্বাভাবিক মৃত্যুবরণ করে। (বুখারি শরীফ:১/১৬২পৃ: হা: ৬৫৩)

বুখারি শরিফের একটি হাদিসে এসেছে- নবী করিম [সা.] বলেছেন, ‘আমাদের মধ্যে যে শহিদ হলো সে জান্নাতে গেল’। মহান আল্লাহ্ বলেন: “যারা আল্লাহর পথে শহীদ হয়েছে তোমরা তাদেরকে মৃত মনে কর না, বরং তারা জীবিত এবং তাদের রবের নিকট হতে তারা রিযিক প্রাপ্ত”। (সূরা-৩ আল-ইমরান:১৬৯) (সূরা-২ আল-বাকারা:১৫৪)।

এখন আপনি বলুন সবচেয়ে সহজে জান্নাতে যাওয়ার জন্য শহিদ মৃত্যুর বিকল্প আর কি হতে পারে? আপনি জান্নাতে যেতে চান কিন্তু মরতে চান না, তা কি করে হয়? শহিদ হওয়ার জন্য করোনা ভাইরাসকে কোন মুসলিমের ভয় করা উচিত নয়। সচেতন হতে হবে আর ভাইরাসে আক্রান্ত হলে বীর বেশে ধর্য ধরতে হবে। এখন আপনি যদি শহিদ হওয়ার লোভে ইচ্ছা করে ভাইরাস ধরান আর চিকিৎসা না করান তাহলে আত্মহত্যা হবে। আর আত্মহত্যা মহাপাপ, সে দোযখবাসী।

আরেক হাদিসে মহামারীর ব্যাপারে মহানবী (সা.) বলেন, ‘কোথাও মহামারী দেখা দিলে এবং সেখানে তোমরা অবস্থানরত থাকলে সে জায়গা ছেড়ে চলে এসো না। আবার কোনো এলাকায় এটা দেখা দিলে এবং সেখানে তোমরা অবস্থান না করে থাকলে, সে জায়গায় গমন করো না।’ (তিরমিজি, হাদিস : ১০৬৫)

করোনা ভাইরাস ভিডিও

দেখুন এই হাদিসে বলা আছে মহামারী দেখা দিলে এবং সেখানে তোমরা অবস্থানরত থাকলে সে জায়গা ছেড়ে চলে এসো না। আর আমরা কি করছি? ইতালি আর চীন থেকে যারা দেশে ফিরেছেন, তারা জানেন যে করোনা তারা নিয়ে দেশে ফিরছেন। আপনারা কতটুকু পরিবারের জন্য করলেন? দেশের জন্য করলেন? চরম স্বার্থবাদিতা কি প্রদর্সন করলেন না? যাই হোক আপনাদের নিয়ে আমার আর কিছু বলার নেই। সুস্থ্য হোন সবাই, অন্যরা নিরাপদে থাকুক এতটুকুই বলতে চাই।

এই ভিডিও যারা দেখছেন তারা আস্তিক বা নাস্তিক হতে পারেন। এই ভাইরাস নিয়ে আমি কোন বেহেস্তের সার্টিফিকেট দিব না, আমি শুধু কিছু রেফারেন্স তুলে ধরলাম। বাকিটা আপনার ইচ্ছা। নাস্তিক ভাইরা আমাকে গালাগালি করে কোন লাভ নাই কারণ এই ভিডিওটা আস্তিকদের পয়েন্ট অফ ভিউ থেকে করা। তাই আপনার জন্য কোন সুসংবাদ দিতে পারলাম না।

তবে আস্তিক ভাইরা বিশেষ করে মুসলিম ভাই ও বোনেরা করোনা ভাইরাস নিয়ে না যেনে না বুঝে কিছু বলবেন না। নিশ্চিত না হয়ে মনের ইচ্ছামত কথা বলে অন্যকে বিভ্রান্ত করবেন না। আমি এই রোগের ব্যাপারে বলতে গেলে তেমন কিছুই জানি না। তাই ভুল কিছু বললে ধরিয়ে দিবেন এবং ক্ষমাপ্রার্থী। আর করোনা ভাইরাস নিয়ে আমার আরেকটি ভিডিও আছে, ডিস্ক্রিপ্সনে লিঙ্ক দেয়া আছে দেখে নিতে পারেন। ভিডিওটি ভাল লাগলে লাইক ও শেয়ার করতে পারেন, খারাপ লাগলে আনলাইক দিয়েন। আর ইচ্ছা হলে চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করতে পারেন। ভাল থাকুন, সুস্থ্য থাকুন। মানুষকে ভালবাসুন, মানবিক হোন।

Related posts

শীতকালে শিশুর যত্ন ও পরিচর্যার টিপস | Baby Care Tips Bangla

Nisikto

ওজন কমানোর উপায় জেনে মেদ কমান আর স্লিম হোন

Nisikto

কাশি দূর করার উপায় কার্যকরী ঘরোয়া পদ্ধতিতে জেনে নিন

Nisikto

Leave a Comment

error: Content is protected !!