স্বাস্থ্য কথা

মেধা বৃদ্ধির খাবার যা খেলে স্মৃতিশক্তি বাড়ে

মেধা বৃদ্ধির খাবার

মেধা বৃদ্ধির খাবার যা খেলে স্মৃতিশক্তি বাড়ে: উপস্থিত বুদ্ধি না থাকলে প্রায় সব খানেই সমস্যায় পড়তে হয়। বুদ্ধি সবারই আছে কিন্তু তাঁর যথাযথ ব্যবহার যথাসময়ে হয় না।যদিও বুদ্ধি বৃদ্ধি করা সম্ভব নয় তারপরও এই খাদ্যগুলো আপনার বুদ্ধির বিকাশ ঘটাতে সক্ষম।

ডিম

গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত ডিম সেবণকারী ব্যক্তিদের সৃতিশক্তি অন্যদের তুলনায় বেশ ভাল। যারা প্রতিদিন অন্তত একটি ডিম খায় তাদের স্মৃতিশক্তি অন্যদের তুলনায় অন্তত ৭০% বেশি ভালো থাকে। পাশাপাশি ডিমে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে। মূলত ডিম এর কুসুমে থাকা Choline পড়াশোনা মনে রাখতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

ভাত রুটি

মানুষের মস্তিষ্ক গ্লুকোজ নির্ভরশীল। শরীরের গ্লুকোজের উপর ব্রেন এর ক্ষমতা নির্ভর করে। বলা যায়, এটিই ব্রেন এর খাবার। মানুষের মস্তিষ্ক ঘন্টায় ৫ গ্রাম গ্লুকোজ গ্রহণ করে কিন্তু সেটি জমা রাখতে পারেনা। এই গ্লুকোজ রক্তের সাথে মিশ্রিত হয়ে মস্তিষ্কে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করে।

এজন্য শস্যদানা টাইপের খাবারগুলো খাওয়া উচিত যেমন ভাত, রুটি ইত্যাদি। যদিও এই খাবারগুলো কার্বোহাইড্রেট এর উৎস। কিন্তু পড়ে এগুলো কনভার্ট হয়ে গ্লুকোজ এ পরিণত হয়। চিনি জাতীয় খাবার পরিহার করা উচিত। কেননা বেশি চিনি খেলে সেটা শরীরে গ্লুকোজের পরিমাণে তারতম্য ঘটিয়ে শরীরে বিপর্যয়ের সৃষ্টি করে।

বাদাম

বাদাম মস্তিষ্কের সমন্বয় সাধনের ক্ষমতা বাড়ায়। ঘুমানোর পূর্ব মহুর্ত বা খুব সকাল বেলা বাদাম খাওয়ার উপযুক্ত সময়। বাদামে রয়েছে ভিটামিন ‘ই’। বিভিন্ন ধরনের বাদাম যেমনঃ চীনাবাদাম, পেস্তা বাদাম, কাজুবাদাম ইত্যাদি মানসিক বৃদ্ধিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

কলা

ব্রেণের খাদ্য তালিকায় এটিও বেশ জরুরি। কলাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম ও ভিটামিন বি২। এটি আমাদের নার্ভ ইমপালস ট্রান্সমিশনে খুব প্রয়োজনীয়। এছাড়াও এটি নিউরোট্রান্সমিটার GABA তৈরিতে সাহায্য করে, যা আমাদের ব্রেনকে ঠান্ডা রাখে।

মাছের তেল

মাছের তেল আমাদের ব্রেন এর জন্য খুবই জরুরী। পুরোনো একটা প্রবাদ আছে , মাছ হলো ব্রেন এর খাদ্য। । এটি মস্তিষ্কের প্রদাহ কমায় ও মস্তিষ্ককে রক্ষা করে। মানুষের ব্রেন ৫০% ফ্যাট ও লিপিড দিয়ে তৈরি। ওমেগা ৩ এর মাঝে অন্যতম । এটা ব্রেন সেল তৈরি করে ও তাকে মেইনটেইন করার সাথে সাথে রক্ষাও করে। মাছের তেল এবং তিসির তেল এ প্রচুর ওমেগা ৩ পাওয়া যায়।

সামুদ্রিক খাবার

বুদ্ধি বাড়াতে সামুদ্রিক খাবারের জুড়ি নেই। কেননা এই খাবারগুলোতে ভিটামিন, কপার, লিথিয়াম, জিংক, প্রোটিন লাইসিন, ম্যাংগানিজ ও আয়োডিন থাকে। যা আমাদের মস্তিষ্কের জন্য অনেক ভালো। আয়োডিনের অভাবে ছোটবেলায় অনেকেই বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী হয়ে থাকে। সামুদ্রিক খাদ্যগুলোতে প্রচুর পরিমাণে আয়োডিন থাকে।

কলিজা

অক্সিজেন হিমোগ্লোবিনের সাথে মিশে অক্সিহিমোগ্লোবিন রুপে রক্তের মাধ্যমে মস্তিষ্কে যায়। আমাদের মস্তিষ্কের জন্য ২০% অক্সিজেন দরকার হয়। আর এই হিমোগ্লোবিন তৈরিতে দরকার হয় আয়রন। যা কলিজাতে খুব থাকে। তাই ব্রেণকে কার্যকর করতে গরু বা খাসির কলিজা খান। বিভিন্ন ভিটামিনের পাশাপাশি কলিজাতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন বি।

ডার্ক চকোলেট

পরিমিত পরিমাণে ডার্ক চকলেট গ্রহণ আপনার এনার্জি লেভেল ও ফোকাস কয়েকগুণ বৃদ্ধি করে। কেননা, ডার্ক চকোলেট এ রয়েছে ৭৫% কোকো, যা সাধারণ কোন চকোলেটে থাকে না। কিন্তু সাবধান অতিরিক্ত ডার্ক চকেলেট গ্রহণ আপনাকে উত্তেজিত করে তুলতে পারে।

আশা করি, এই খাবার গুলো আপনাকে বুদ্ধি বাড়াতে ও স্মৃতিশক্তি প্রখর করতে সাহায্য করবে। অতিরিক্ত কিছু খেতে যাবেন না, নিয়মিত একটু একটু করে খেয়ে যান।

আরও পড়ুন- স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধির উপায় জেনে ব্রেন তীক্ষ্ণ করুন

মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধির উপায় একুপ্রেসার ও মুদ্রা

ব্রেন ভালো রাখার উপায় কি?

আপনার মতামত দিন

error: Content is protected !!