পরীক্ষার প্রস্তুতি লেখাপড়া

এইচ এস সি ইমপ্রুভমেন্ট পরীক্ষা | Improvement exam

improvement exam bd

Improvement exam bd বা এইচ এস সি ইমপ্রুভমেন্ট পরীক্ষা নিয়ে খুঁটিনাটি আলোচনা: বাংলাদেশে এইচ এস সি পরীক্ষার সাথে যুক্ত হয়েছে Improvement Exam বা ইমপ্রুভমেন্ট পরীক্ষা। কিন্তু অনেকেই এ বিষয়টি নিয়ে গোলকধাঁধার মধ্যে রয়েছে। বিষয়টির সাথে অনেকে অবগত হলেও বেশ কিছু প্রশ্ন তাদের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

পর্যাপ্ত জিপিএ না পাওয়ার কারণে, তোমাদের মধ্যে অনেকেই কাংক্ষিত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আবেদন করতে পারনি। হয়তো অনেকেই ভাবছো improvement exam টা দিয়ে, আর একটু ভালো জিপিএ নিয়ে সে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আবেদন করবো।

এখন এ নিয়ে অনেকের মধ্যে বেশ কিছু মিসকন্সেপশন রয়েছে। তোমাদের মনের ভেতর থাকা, সেই সকল প্রশ্নগুলোকে গুছিয়ে আমি indetails answer দেয়ার চেষ্টা করবো।

আমরা দেখার চেষ্টা করবো, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আরেকবার পরীক্ষা দেয়ার জন্য ইমপ্রুভমেন্ট কোনো উপকার করবে কিনা। ইমপ্রুভমেন্ট কয়বার দেয়া যায়? সেক্ষেত্রে test exam থেকে শুরু করে কোন কোন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে improvement দিয়ে আবার পরীক্ষা দেয়া যায়। তো চলো শুরু করি-

Improvement Exam টা আসলে কি?

গ্রামভিত্তিক কলেজ গুলোর বেশিরভাগ শিক্ষার্থীরই Improvement বিষয়ে তেমন কোনো ভালো ধারণা নেই।

improvement exam
Improvement Exam

কোনো এক বা একাধিক বিষয়ে, যদি তুমি জিপিএ ৫ না পাও, তখন তুমি জিপিএ টাকে আপ করার জন্য যে এক্সামটা দিবা সেটাই হচ্ছে improvement exam.

দ্বিতীয় প্রশ্ন: Improvement এর সিলেবাসটা আসলে কি থাকবে?

প্রথমবার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেয়ার সময়, যে সিলেবাস অনুসার তুমি পরীক্ষা দিয়েছো, ঠিক সেই সিলেবাস অনুসারেই তোমার improvement exam হবে।

তৃতীয় প্রশ্ন: Improvement exam কয়বার দেয়া যায়?

Improvement exam মাত্র একবারই দেয়া যায়। ধরো, তুমি ২০১৮ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেছো, তুমি চাইলে ২০১৯ সালে মাত্র একবারই improvement দিতে পারবা।

চতুর্থ প্রশ্ন: Improvement exam দিলে পর্যাপ্ত জিপিএ প্রাপ্তির ক্ষেত্রে কোথায় কোথায় পরীক্ষা দেয়া যাবে?

এটা প্রায়ই সবারই question. ধরো, তুমি ২০১৫ সালে এসএসসি পরীক্ষা এবং ২০১৭ সালে এইচ এস সি পরীক্ষা দিয়েছো। জিপিএ কম পাওয়ার কারণে ২০১৮ সালে তুমি আবার ইমপ্রুভমেন্ট পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করো। এখন improvement দেয়ার পর জিপিএ বৃদ্ধি পেলে তুমি মেডিক্যালসহ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে, সকল ইঞ্জিনিয়ারিং বিশ্ববিদ্যালয়ে, সকল কৃষিবিশ্ববিদ্যালয়ে exam দিতে পারবে। কেবল মাত্র ঢাবি ছাড়া।

এখন তুমি জানতে চাইবে কেন ঢাবি ছাড়া? যখন তুমি তোমার অরিজিনাল উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষাটা দিয়েছিলে, তাতে প্রাপ্ত জিপিএ দিয়ে তুমি যদি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো না কোনো ইউনিটে আবেদন করে থাকো, তাহলে তুমি পরবর্তী বছরে improvement দিয়ে রেজাল্ট improve হলেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা দিতে পারবা না।

৫ম প্রশ্ন: আমি জিপিএ ফাইভ পেয়েছি, কিন্তু Golden A+ পাইনি বা প্রত্যেকটা বিষয়ে এ প্লাস পাইনি? এখন আমি কি ইনপ্রভমেন্ট দিতে পারবো?

না, এই অবস্থায় improvement দেওয়া যাবে না। যারা জিপিএ ফাইভের কম পাবে তারা চাইলে improvement দিতে পারবে তাদের প্রাপ্ত জিপিএটাকে বৃদ্ধি করার জন্য। কিন্তু তুমি তো অলরেডি জিপিএ ফাইভ পাওয়া। এই অবস্থায় এর থেকে উপরে যাওয়া সরকারি ভাবে আর তো পসিবল না।

৬ষ্ঠ প্রশ্ন: রেজাল্ট যদি improvement দিয়ে আগের চেয়ে আরও খারাপ হয় বা ফেইল চলে আসে তখন কি হবে?

Improvement দেয়ার ফলে যদি তোমার রেজাল্ট খারাপও হয় তাতে দুঃচিন্তা করার কিছু নেই। এতে তোমার রেজাল্ট কিন্তু আগেরটাই কাউন্ট হবে। খারাপ যেটা হবে সেইটা কাউন্ট হবে না। বা ফেইল হইলেও সেটা কাউন্ট হবে না। অর্থাৎ এই ক্ষেত্রে তোমার অরিজিনাল এইচ এস সি এর রেজাল্টটি কাউন্ট হবে।

৭ম প্রশ্ন: Improvement দেওয়ার ফলে আমি এইচ এস সি’র যে সার্টিফিকেটা টা পাবো, সেটা কি রেগুলার হিসেবে কাউন্ট হবে নাকি ইরেগুলার হিসেবে কাউন্ট হবে?

Actually improvement দেওয়ার পর উচ্চ মাধ্যমিকের যে সার্টিফিকেটটা তুমি পাবে সেটা ইরেগুলার হিসেবে কাউন্ট হবে।

৮ম প্রশ্ন: ইরেগুলার কি পরবর্তিতে Job বা Higher Studies এ কোনো প্রভাব ফেলবে কিনা?

না। ইরেগুলারের এই সার্টিফিকেট তোমার হায়ার স্টাডিজ বা চাকরীর ক্ষেত্রে কোনো প্রকার সমস্যা ক্রিয়েট করবে না।

৯ম প্রশ্ন: কোন কলেজ থেকে improvement দেয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে হবে?

তুমি যে কলেজ থেকে প্রথমবার উচ্চ মাধ্যমিক exam টা দিয়েছো, সেই কলেজ থেকেই আবার রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। অনেকে রেজিস্ট্রেশন সম্পর্কে আগে থেকে খোঁজখবর না রাখার কারণে improvement দিতে চাইলেও আবেদন করার যে date, এগুলো পার হয়ে যায়। এজন্য যেই কলেজ থেকে তুমি উচ্চ মাধ্যমিক exam টা দিয়েছো, যথাসম্ভব দ্রুত ট্রাই করো, সেই কলেজে যোগাযোগ করার।

ইমপ্রুভমেন্ট পরীক্ষা

কলেজ কর্তৃপক্ষকে এটা জানাও যে তুমি improvement দিতে ইচ্ছুক এবং কি কি প্রসিডিউর রয়েছে, তুমি সেগুলো তাদের কাছ থেকে জেনে নাও। এর ফলে তুমি কোনো ডেট মিস করবা না এবং তুমি improvement টা ভালো ভাবে দিতে পারবা।

১০ম প্রশ্ন: Improvement exam এর রেজিস্ট্রেশন করতে কত টাকা লাগতে পারে?

সত্যি কথা বলতে কি- এই প্রশ্নের উত্তর টা আমার জানা নাই। এটা বিভিন্ন কলেজ ভেদে বিভিন্ন রকম হতে পারে। সরকারি কলেজগুলোর ক্ষেত্রে এক রকম এবং প্রাইভেট কলেজগুলোর ক্ষেত্রে আরেক রকম। তুমি কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছ সেটা থেকে জেনে নিতে পারো।

১১ নাম্বার প্রশ্ন: আমি improvement exam দিবো। এজন্য আমাকে টেস্ট দিতে হবে কি?

না। improvement exam দেয়ার জন্য যে তোমাকে টেস্ট exam দিতে হবে এমন কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। তবে যদি তুমি নিজেকে যাচাই করতে চাও যেমন প্রিপারেশন কতটুকু হলো, কোন কোন সাবজেক্ট এ খারাপ হচ্ছে – এই বিষয়গুলো জানার জন্য তুমি চাইলে টেস্টে এটেন্ড করতে পারো।

১২ নাম্বার প্রশ্ন: Improvement দিয়ে রেজাল্ট যদি improve হয় তাহলে আমি ফাস্ট টাইমার না সেকেণ্ড টাইমার বলে কাউন্ট হবো?

Improvement দেওয়ার ফলে রেজাল্ট যদি improve হয়, তাহলে তুমি ফাস্ট টাইমার বলে কাউণ্ট হবা। তখন তুমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করতে পারবা। কিন্তু আগে যদি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করে থাকো তবে তুমি ফাস্ট টাইমার হওয়া সত্ত্বেও আবেদন করতে পারবা না। এছাড়া বাকি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আবেদন করলেও করতে পারো। যদিও তুমি এর আগে আবেদন করেছিলে। বিশেষ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে এই নিয়মটা নেই।

এই ছিল improvement exam নিয়ে বিষদ আলোচনা। আশা করি এই রিলেটেড যত প্রশ্ন তোমাদের মনে ছিল সবগুলোর পূর্ণাংগ আলোচনা পেয়েছো। এরপরও যদি ভর্তি প্রস্তুতি রিলেটেড বা তোমার পার্সোনাল কোনো সমস্যা থেকে থাকে এবং তোমার মনে হয় যে, আমি তোমাকে সাহায্য করতে পারি তবে সেটা কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাতে পারো। ভিডিওটি অবশ্যই সবার সাথে শেয়ার করবে, কেননা এই বিষয়গুলো নিয়ে এখনো অনেকেই বিষদ ভাবে জানে না। মূল্যবান সময় ব্যয় করে ভিডিওটি দেখার জন্য ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন: সবসময় মনকে হাসিখুশি থাকার উপায়

আপনার মতামত দিন

error: Content is protected !!